শিল্পী কালিদাসের পাললিক অনুভব

kalidas71_chitram

প্রদর্শনী দেখছেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় অর্থমন্ত্রী জনাব আবুল মাল আব্দুল মুহিত, এম.পি., শিল্লী কালিদাস কর্মকার ও দৈনিক ইত্তেফাক-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও পাক্ষিক অনন্যা পত্রিকার সম্পাদক তাসমিমা হোসেন

।চিত্রম ডেস্ক। ৪ ডিসেম্বর ২০১৫ এ্যাথেনা গ্যালারি অব্ ফাইন আর্টসে শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক খ্যাতিমান শিল্পী কালিদাস কর্মকারের ‘পাললিক অনুভব’ শীর্ষক একক চিত্রপ্রদর্শনী।

এ্যাথেনা গ্যালারি অব্ ফাইন আর্টসে ৪ ডিসেম্বর, শুক্রবার, সন্ধ্যা ৬:০০ টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ১৯ দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীর শুভ উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় অর্থমন্ত্রী জনাব আবুল মাল আব্দুল মুহিত, এম.পি.। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক ইত্তেফাক-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও পাক্ষিক অনন্যা পত্রিকার সম্পাদক তাসমিমা হোসেন, বরেন্য শিল্পী ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মুস্তাফা মনোয়ার এবং সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এ্যাথেনা গ্যালরি অব্ ফাইন আর্টসের চেয়ারপারসন নিলু রওশন মোরশেদ।

শিল্পী কালিদাস কর্মকরের ৭১তম এ প্রদর্শনীতে বিভিন্ন মাধ্যমে করা মোট ৭১টি শিল্পকর্ম স্থান পেয়েছে। এ্যাক্রেলিক, মিশ্রমাধ্যম, ছাপচিত্র, ডিজিটাল লিথোগ্রাফ, ড্রইং ও অনান্য মাধ্যম সহ শিল্পীর বর্তমান বাস্তব সময়ের নিরিখে স্থাপনা শিল্পও প্রদর্শনিতে স্থান পেয়েছে। ২২ ডিসেম্বর ২০১৫ পর্যন্ত প্রতিদিন বেলা ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

কালিদাস কর্মকার ১৯৪৬ সালে ফরিদপুর শহরের নিলটুলীতে জন্মগ্রহন করেন। তিনি ১৯৬২-৬৪তে ঢাকা ইনস্টিটিউট অব আটর্স থেকে ২ বছরের কোর্স শেষ করে, ১৯৬৯ সালে কলকাতায় গভর্নমেন্ট কলেজ অব্ ফাইন আর্টস এবং ক্রাফ্ট থেকে প্রথম বিভাগে প্রথম স্থান নিয়ে চারুকলায় স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। এ পর্যন্ত দেশে-বিদেশে তার একক চিত্র প্রদর্শনীর সংখ্যা ৭১। বাংলাদেশে ছাপচিত্র-শিল্পের প্রচার ও প্রসার আন্দোলনে গ্রাফিক্স আঁতেলিয়ার-৭১ এর মাধ্যমে তার ভূমিকা উল্লেখযোগ্য। ভারত ছাড়াও পোলান্ড, ফ্রান্স, জাপান, আমেরিকাতে আধুনিক শিল্পের বিভিন্ন মাধ্যমে উচ্চতর ফেলোশিপ নিয়ে সমকালিন চারুকলা মাধ্যমে নিরিক্ষা করেছেন। শিল্পী কালিদাসের ছবিতে বর্তমান সময়, অবিশ্রান্ত মানবীয় অভিজ্ঞতার সম্পর্কের ভাষা মূর্ত করে তোলে। তার ছবির শেকড় গাঁথা এ জনপদেরই মাটিতে। এ ভূখন্ডের যাপনপ্রনালী, নানা ধর্মের সমন্বয়, লোকশিল্পের নানা প্রতীক উপাদান হিসেবে এসেছে শিল্পী কালিদাসের চিত্রকলায়। তাঁর চিত্রকলায় এ জনগোষ্ঠির বিভিন্ন আন্দোলনের অনুসঙ্গে এসেছে তাবিজ, কবজ আর কড়ি। কাগজের মন্ডের পটভূমিতে কখনো চকিতে ধরা পড়েছে মৃত্যুমুখ মুক্তিযোদ্ধার যন্ত্রনাকাতর হাতের ইঙ্গিত। শিল্পী কালিদাসের চিত্রকলায় এসেছে আবহমান বাঙালির নিশ্বাস, কিন্তু চিত্রকলার স্বভাব কোথাও ঢলে পড়েনি। শিল্পীর উচ্ছাস, অভিব্যাক্তি, শুদ্ধতা, বেদনা, স্মৃতি আর একাকিত্ব এ সবই যেন শিল্পীর এক পাললিক অনুভব।

FacebookTwitterGoogle+Google GmailPinterestLinkedIn

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

ফেসবুকে চিত্রম

সর্বশেষ সংবাদ

মাসিক আর্কাইভ

নিউজলেটার পেতে সাবসক্রাইব করুন

     Read More »