চলো হে আদম গন্দম ফল খাই

anishkapoor-p054_chitram

ব্রিটিশ শিল্পী আনিশ কাপুরের একটি শিল্পকর্ম

।নাজিব তারেক।

ক.

অর্ন্তজালে দেখছি, দেখছি আর একটি প্রশ্ন মাথায় ক্রমাগত বড় হচ্ছে, কেন চোখ বার বার তারে (সাদা অথবা কালো ইউরোপ সুন্দরী) খোঁজে, তাই এটি কোন শিল্প বিষয়ক রচনা নয়, একটি বিশুদ্ধ পুরুষ প্রতিক্রিয়া…

খ.

ক’বছর আগে বিশ্ব জুড়ে ঝড় উঠলো ‘হিজাব’ নিয়ে। আমি নিজেও হিজাবের সমর্থনে বিবিসির অনলাইন আলোচনায় মত দিয়েছি। আবার আজ এক লেখা পড়তে গিয়ে জানলাম নারী বক্ষ কাপড়ের আড়াল করবার অধিকার লাভের জন্য ১৮৯০ এ ভারতবর্ষে আন্দোলন হয়েছে। হ্যাঁ ইতিহাসের পাতায় পাতায় এ রকম বিপরীত মুখী অজস্র তথ্য ছড়িয়ে আছে।

গ.

শুনহে আর্টিস্টম্যান বালক আমি কেন প্রতি বিকেলে এই ভাষা ইন্সটিটিউটের লোহার দেয়ালে বসে থাকি জান? আাল্লাহ চোখ দিয়েছেন তাঁর সৃস্টির সোন্দর দেখবার জন্য, আর মাথা দিয়েছেন চোখ যেন কোন পাপ না করে তা পাহারা দেবার জন্য। এটাকেই পর্দা বলে।

ঘ.

কোনটি পর্ন? কোনটি শিল্প?

ঙ.

যাহা মানুষের প্রয়াস লদ্ধ, যাহা মানুষের কর্ম সৃস্ট তাহাই শিল্প। পর্নও মানুষেরই কর্ম, পর্ন তাহাই যাহাতে মানুষের ‘চিন্তার সক্ষমতা’র কোন প্রমান নাই। নেটে সার্চ দিলে যে সব ভিডিও পাওয়া যায়? হলিউড পর্নে যে ক্যামেরা চিন্তা পাই, ভারত বা বাংলার এমএমএসএ তা নেই। তবে কি হলিউড শিল্প আর এই সব এমএমএসগুলি পর্ন?

‘যাহা কামকে জাগ্রত করে তাহাই শিল্প’ ভারতশিল্পের এ সূত্রকে খুব সরলে মেনেই ‌আনিশ কাপুর বলে বসলেন ‘হেনরী মুর’ যাহা করেন তাহা জণ্জাল মাত্র। তাহাতেই তিনি ব্রিটিশ রানীর প্রিয় শিল্পী, ভেনিসেরও।

আর মার্কিনী জেফ কুনস ইতালীর পর্ন তারকা ও সাংসদ সিসিলিওনাকে নিয়ে রচিলেন ফটো ইন্সটলেশন ‘আমি ও সিসিলিওনা’

তারো আগে টম ওয়েলসম্যানের ‘গ্রেট আমেরিকান নুড’।

কিন্তু আমাকে চমকে দিয়েছিলেন ভারতের এফ এন সুজা, ‘হাফ ন্যুড গার্ল সিটেড অন দা চেয়ার’ এবং অমৃতা শেরগীল, তার নূড সেল্ফ পোট্টেট দিয়ে। আর জয়নুলের সাওতাল।

চ.

রবীন্দ্র পাঠে জানা গেল ‘জগত ধরা পড়ে রুপে’। আর চোখ হচ্ছে সে রুপ ধরবার জাল। ২০০৯ –এ মুম্বাইয়ে এক আলোচনায় সুথবীর প্রতিদ্বন্দ্বী সাচী কন্যা জানালেন ‘মানুষ কান দিয়ে ছবি কেনে’ আর ১৯৯৫-৯৬ এ আমারই রচনা ‘কবিতার চিত্রায়ন প্রসঙ্গে’ লিখতে গিয়ে জেনেছিলাম, শিল্পকলার ইতিহাস আসলে কবিতার (ভাবনা বা গল্পের) চিত্রায়নের ইতিহাস। অবন-হ্যাভেলের ভারত শিল্পের দুর্বলতার জায়গাটি পেয়েও হারিয়েছেন রবীন্দ্রনাথ। জগতের অধিকাংশ শিল্পই আসলে কানে দেখে আঁকা, চোখে দেখে নয়।

ছ.

কাইয়ুম চৌধুরীর কচুরিপানা’র স্মৃতি তাই স্রেফ স্মৃতিতেই চমকে চমকে ওঠে।

জ.

রবীন্দ্রনাথ তাই প্রবল সন্ধানে চোখের আলোতেই চিত্র রচনা করতে চান। কিন্তু বাহাত্তুরে বুড়োর চোখে আর কতটুকই বা আলো। পার্সী তরুনী অমৃতা শেরগীল আয়নায় দেখলেন নিজের রুপ। আর সুজা স্নানঘরের দরজার ছিদ্র দিয়ে নারীর রূপ, আয়নায় বসন্ত ক্ষত। হুসেন সিনেমার পর্দায় জীবন, লার্জার দেন লাইফ।

ঝ.

চোখ কিভাবে দেখে? সেটাই শেখালো রেনেসাঁ ও ভিঞ্চী এবং ড্যুরার। সেটা পাথর, সেটা জল, সেটা ফুল, সেটা নারী, সেটা নারীর চুল। এখানে কোন গল্প ছিল না, ছিল শুধু দেখবার বাসনা, চিনবার বাসনা। যেন নিজেকেই দেখা। যাহাকে বিজ্ঞান বলে। যাহাকে বলে ‘নো দাই সেল্ফ’। সেখানে কোন গল্প নেই। একেবারেই যেন স্কুলের প্রানীবিদ্যা বইয়ের তেলাপোকার ব্যবচ্ছেদ ও তার চিত্রাঙ্কন। কোন মহত্ব বা গল্প নেই।

ঞ.

মোনালিসা তাই নিখাদ চিত্রকলা। মুদ্রন যন্ত্রের কারিশমায় শত শত গল্প যুক্ত করবার চেষ্টা শর্তেও কোনটিই শেষ পর্যন্ত টেকে না। আলতামিরার বাইসনের মত, কিংবা মহেঞ্জদারোর সিলমোহর, অথবা ভেনাস অফ উইলেনডর্ফ। গ্রীক দর্শন জেনেছিল ‘জগত ধরা পড়ে রুপে’, সে জানাটির পুনরুথ্থানই রেনেসাঁ, আর রেনেসাঁর আবিস্কার পরিপ্রেক্ষিত বা যুক্তি।

ট.

প্রাচ্য কিংবা ভারত বা বাংলা কি জানে না ‘জগত ধরা পড়ে রুপে’। জানে, জানে বলেই তাহার উচ্চারণ ‘প্রথমে নজরদারী তারপর গুন বিচারী’ সে এও জানে মস্তিকের ভ্রান্তী বিলাস ও কান বা কর্ণ প্রীতি, তাই ‘যৌবনে কুক্কুরীকেও তার অপ্সরী মনে হয়’ এবং ‘তার কান চিলে নেয়’। গ্রাম্য চাষা শুধু জানে, কিন্তু পুরোহীত ও রাজন্য সে জানাটাকেই অস্ত্র বানায়। ‘রুপ তাই মায়া’,  ‘ছবি আঁকা তাই পাপ’। জগত তাই ধরা পড়ে না। ভুট্টার আর পপকর্ণ হওয়া হয় না। কাঠ কয়লা কাঠ কয়লাই থাকে, চারকোল হয় না। চোলাইয়ের মদ হয়ে ওঠা হয় না বোতলে লেবেলে।

ঠ.

পলি মেশানো জল ঘোলা, পুকুরের কাদা জলও ঘোলা। দেখা হয়নি নারীর নিজ অঙ্গরুপ। পুরুষ কি দেখেছিল? হ্যা এবং না। কৃষানণর অঙ্গ ভরা কাদা। কৃষাণীও তাই। যে টুকু দেখবার সুজোগ তা শুধু পূর্নিমা রাতে। তোমায় দেখি না চাঁদ দেখি? এসো অঙ্গ ভিড়িয়ে সঙ্গ করি। চারপাশে ঝাড় জঙ্গল, বন্য শুয়োর খুজে ফেরে প্রিয় কাদা। আর আপনা মাংস হরিনা বৈরী। রূপ দেখবার সুযোগ কোথায়? কোথায় সুরক্ষীত নগর। দেখা হয়নি চক্ষু মেলিয়া। যখন দেখীবার ফুরসত মিলিল, নারী স্তনে তখন সন্তানের মুখ। তাও কি দেখেছি চক্ষু ফেলে? না, কে তাহার অন্ন জোগায়…

ড.

শরীরই সুন্দর ব্যায়াম তাহাকে সুন্দর রাখে, যোগ ব্যায়াম হচ্ছে ঈশ্বর সাধনা। চল আমরা সুফি তত্ত্বে ও মাওবাদে `ইনার বিউটি‘ খুঁজি। ইশ্বরের নুরের আলোয় ছায়া হয় না, আহারে শরীর তোমার ছায়া পড়ে না তাহার মনে।

জল ঘোলা, আয়নাও নেই, নিজেকে কি করে দেখি। জেলে পত্নি তাই পতির জালে পাওয়া কাচের টুকরোয় নিজ রূপ দেখে ভাবে, পতিদেব ঘুরিছে পেত্নির পেছনে… উল্টোকরে পতিদেব ভুত তাড়ানোর মন্ত্র জপে।

ঢ.

বাজারে বিকোয় তাই পট আঁকি

বাজারে বিকোয় তাই শখের হাড়ি

বাজারে বিকোয় তাই রিক্সা চিত্র

বাজারে বিকোয় তাই বিদেশী যন্ত্রে বিদেশী কাগজে আলো দিয়ে আঁকি ভাঙ্গা শরীর, ছেঁড়া পরনের কাপড়, ক্ষয়ে যাওয়া দেয়াল আর ভিক্ষা প্রার্থী হাত আর ভাঙ্গা জাহাজ

বাজারে বিকোয় তাই বাজারের আধুনিকতা-উত্তর আধুনিকতা

বাজারে বিকোয় না তাই দেখা হয় না নিজের মুখ, নিজের শরীর। দেখা হয় না দেখবার আনন্দে। যা দেখী তা শুধু শিকারের নেশায়…

কাহারে পর্দা বলে?

ণ.

যে পোশাক তুমি অঙ্গে জড়িয়েছো তা কী নিজেকে সাজাতে, আয়নায় নিজেকে দেখে বার বার নিজেই মুগ্ধ হতে…

না কি শিকার করবার বা শিকার হওয়ার আশায় তোমার এ সাজ, সেটা হতে পারে খুললাম খুল্লা, হতে পারে টাই-স্যুট কোর্ট, হতে পারে লুঙ্গি-গলায় গামছা ঝোলানো কিংবা পায়জামা পাঞ্জাবী অথবা বোরকা হিজাব। যা তোমার অঙ্গে লাগে তাই, শিকার ধরতে বা শিকার হতে যদি হয় তবে তুমি পর্ন তারকা।

বার বার নিজেকে দেখে মুগ্ধ হতে যদি তুমি সাজো, যদি তুমি সে দেখাই অন্যকে দেখাতে চাও তবে তুমি শিল্পী।

শিল্প যে দেখবার ও দেখাবার আনন্দ… বিকোবার আনন্দটাই পর্নোগ্রাফি…

ত.

`তোমাদের জন্য বানিজ্যকে করা হইলো হালাল’ এ বানী শুনেছিল ফ্লোরেন্স, ইউরোপ। মূল্য নির্ধারন পূর্বক হইলো বিনিময়… আমি জানি কি দেখিতে চাই, কেন দেখিতে চাই…

গন্দম ফল খেয়ে আদমের হাওয়া বিবিকে কিংবা হাওয়া বিবির আদমকে চোখে দেখবার আনন্দের পুনঃপ্রতিষ্ঠাই ‘ইউরোপীয় রেনেসা’।

৩ অক্টোবর ২০১৫

(মতামত বিভাগে প্রকাশিত লেখায় মন্তব্য লেখকের একান্ত ব্যক্তিগত। এই লেখার বিষয়বস্তু বা মন্তব্যের জন্য চিত্রম কর্তৃপক্ষ কোনরূপ দায় বহন করবে না)

FacebookTwitterGoogle+Google GmailPinterestLinkedIn

One comment on “চলো হে আদম গন্দম ফল খাই
  1. rubai says:

    চমৎকার!!!
    (y)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

ফেসবুকে চিত্রম

সর্বশেষ সংবাদ

মাসিক আর্কাইভ

নিউজলেটার পেতে সাবসক্রাইব করুন

৮ম কাহাল আন্তর্জাতিক আর্ট ফেয়ারে নিবন্ধন করতে ক্লিক করুন http://kahalbd.com/8th-kahal-international-art-fair-2016/ এই লিংকে     Read More »