যে শিল্পকর্মগুলো বিস্ময়ের…

শিল্পী ঢালী আল মামুন

শিল্পী ঢালী আল মামুন

।অর্ঘ সেন। গ্যালারিতে ঢোকা মাত্র এমন এক জগতে একজন দর্শকের পদচারণ শুরু হবে, যেখানে রয়েছে বিস্ময়ের পর বিস্ময়। কৌতূহলীদের মনে নিশ্চিতভাবেই জাগবে অনেক প্রশ্ন। যারা নিজেদের মতো এর ব্যাখ্যা ও জবাব খোঁজার চেষ্টা করবেন, তাদের জন্য খোরাকের অভাব হবে না। ড্রয়িং, ভাস্কর্য, স্থাপনা ও অডিও ভিজ্যুয়াল—সব মিলিয়েই এই আয়োজন।

শিল্পী সমন্বয় ঘটিয়েছেন আলো, নিরেট ও তরলের। স্থাপনাকর্মের বিভিন্ন অংশের আলাদা আলাদা নাম রয়েছে, তবে কোনোটিই যোগসূত্রের বাইরে নয়। সবগুলোকে নিয়ে মালাটি গাঁথতে হবে দর্শককেই। শিল্পী শুধু কিছু সূত্র রেখে গেছেন।

বলা হচ্ছে, শিল্পী ঢালী আল মামুনের ‘টাইম, কো-ইন্সিডেন্স অ্যান্ড হিস্ট্রি’র কথা। রাজধানীর ধানমন্ডির বেঙ্গল শিল্পালয়ে চলছে তার একক শিল্পকর্ম প্রদর্শনী।

মূল প্রদর্শনীকে ঘিরে স্থান পেয়েছে স্থাপনাশিল্প নির্ভর ড্রয়িং,ভাস্কর্যসহ ১২টি নান্দনিক শিল্পকর্ম। ঢালী আল মামুনের ড্রয়িং, চিত্রকর্ম, গতিময় ভাস্কর্য এবং স্থাপনা, স্থানিক বাস্তবতায়, জ্ঞান এবং অভিজ্ঞতার যে বহুবিধ প্রক্রিয়া একই বিন্দুতে মিলিত হয়েছে।

প্রদর্শনীতে আলো, বয়ন-বিন্যাস এবং অবয়বের স্থানান্তরের মধ্য দিয়ে তিনি জটিল ও নাটকীয় অভিজ্ঞতার রূপক নির্মাণ করেছেন। তার এই প্রয়াস এ অঞ্চলের ইতিহাস ও স্মৃতির ওপর আলোর বিচ্ছুরণ ঘটিয়েছে।

‘লাট সাহেবের চেয়ার’ শিরোনামের কাজটি আমাদের সামনে সেই ইতিহাসকে আবার স্মরণ করিয়ে দেয়, যখন লর্ড ক্লাইভের কাছে বাংলা, বিহার ও উড়িষ্যার দেওয়ানি হস্তান্তর করেছিল মোগলেরা।

তবে বেশিরভাগ শিল্পকর্মে ঢালী আল মামুন তার ভাবনা উহ্য রাখেন। এ সুযোগ করে দেন তিনি ইচ্ছা করেই, যাতে দর্শক দেখামাত্র হৃদয়ে ভাবনার উদ্রেক হয়।

প্রদর্শনীর শিরোনামই ভাবায় শিল্পরসিককে। টাইম বা সময়ের ভেতর অতীত-বর্তমান-ভবিষ্যৎ আছে। আর কো-ইন্সিডেন্স, সে তো হঠাৎ আলোর ঝলকানি। এর ভেতর আমাদের নিজস্ব ঐতিহ্যও ঢুকে পড়েছে। আমরা সবাই সংস্কৃতির অংশ, আমরা সবাই ইতিহাসের অংশ।

তবে শিল্পী ঢালী আল মামুনের শিল্পকর্ম সহজবোধ্য নয়। গভীর পর্যব্ক্ষেণ ছাড়া ভাবার্থ বের করা কঠিন। একটি বিষয়ের ভেতর আরেক বিষয় ঢুকে পড়ে তার কাজে। শুধু নান্দনিকতাকেই বড় করে তোলেন না এই শিল্পী। এর সঙ্গে জড়িয়ে দেন ইতিহাস, আমাদের নিজস্ব ইতিহাস। তার প্রকাশভঙ্গি ব্যতিক্রম।

ড্রয়িং, ভাস্কর্য, স্থাপনা ও চলমান চিত্রকল্প মাধ্যমে করা এই প্রদর্শনী চলবে ১৯ মার্চ পর্যন্ত। প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত ৮টা।

FacebookTwitterGoogle+Google GmailPinterestLinkedIn

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

ফেসবুকে চিত্রম

সর্বশেষ সংবাদ

মাসিক আর্কাইভ

নিউজলেটার পেতে সাবসক্রাইব করুন

৮ম কাহাল আন্তর্জাতিক আর্ট ফেয়ারে নিবন্ধন করতে ক্লিক করুন http://kahalbd.com/8th-kahal-international-art-fair-2016/ এই লিংকে     Read More »